সাংহাই ইস্তেহার লঙ্ঘন করেছে যুক্তরাষ্ট্র

দ্রুত কালো মেঘ জমছে এশিয়ার আকাশে। তাইওয়ান ঘিরে বিপজ্জনক অবস্থার মুখোমুখি চীন। ইউক্রেনের মত যুক্তরাষ্ট্র একই পরিস্থিতি সৃষ্টি করে চলছে তাইওয়ানে। রাশিয়ার মত তাইওয়ান অভিযানে চীনকে পুরো মাত্রায় উসকানি দিয়ে চলছে বাইডেন প্রশাসন।  পেলোসির তাইপে সফর ঘিরে ওয়াশিংটন-বেইজিং সম্পর্কের যে অবণতি ঘটবে তা বাইডেন প্রশাসনের অজানা নয়। কিন্তু তারপরও কেন ইউক্রেন যুদ্ধ চলাকালে ওয়াশিংটন এ ধরনের বেপরোয়া পদক্ষেপ নিল তা নিয়ে চলছে নানা ধরনের বিশ্লেষন।  তাইওয়ান নিয়ে উত্তেজনায় যুক্তরাষ্ট্রের ভুমিকার নানা দিক বিশ্লেষন করেছেন মেহেদী হাসান।


এমবিএস ও তেলের কাছে হেরে গেলেন বাইডেন

  • ১৯ জুলাই ২০২২ ১১:০২

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের মধ্যপ্রাচ্য সফর নিয়ে নানা সমালোচনা ও বিশ্লেষণ শুরু হয়েছে। সৌদি আরবের মানবাধিকার পরিস্থিতির কড়া সমালোচনা করে ক্ষমতায় এসেছিলেন বাইডেন। কিন্তু সেই বাইডেনকেও এখন সৌদি আরবের দ্বারস্থ হতে হলো। ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম বেড়ে যাওয়ায় নজিরবিহীন মূল্যস্ফীতির মোকাবেলা করতে হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রসহ তাদের মিত্র দেশগুলোকে। তবে বিশ্লেষকরা বলছেন, শুধু তেলের জন্য মধ্যপ্রাচ্যে আসেননি বাইডেন। বরং সৌদি ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানের সাথে বৈঠক করাই ছিল তার প্রধান উদ্দেশ্য। কারণ, দেরিতে হলেও বাইডেন বুঝতে পেরেছেন যে, সৌদি আরব এখন আর এককভাবে আমেরিকার উপর নির্ভরশীল নয়। বরং যুক্তরাষ্ট্রের অনুপস্থিতিতে চীন ও রাশিয়ার সাথে ভালো সম্পর্ক গড়ে উঠেছে রিয়াদের। বিস্তারিত থাকছে হায়দার সাইফের প্রতিবেদনে।


রাশিয়ার পর চীনকে কি মোকাবিলা করতে পারবে ন্যটো?

  • ০৫ জুলাই ২০২২ ২৩:৩৩

ন্যাটোর সাম্প্রতিক সম্মেলনে যে কৌশলপত্র গ্রহণ করা হয়েছে, তাতে প্রাথমিক প্রতিপক্ষ হিসেবে স্বাভাবিকভাবেই রাশিয়াকে চিহ্নিত করা হয়েছে। ইউক্রেন কেন্দ্রিক চলমান সঙ্ঘাতের ঘিরে এটাই ছিল স্বাভাবিক। কিন্তু কৌশলপত্রের মধ্যে সুস্পষ্টভাবে চীনকে নিয়েও আলোচনা করা হয়েছে, যেখানে বেইজিংকে ন্যাটোর প্রতিপক্ষ হিসেবে দাঁড় করানো হয়েছে। মূলত চীনের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের যে বৈশ্বিক প্রতিযোগিতা চলছে, সেখানে একক শক্তিতে টিকতে না পেরে যুক্তরাষ্ট্র এখন ন্যাটোকে চীনের বিরুদ্ধে দাঁড় করাতে চাচ্ছে। কিন্তু যে সব যুক্তিতে চীনকে ন্যাটোর প্রতিপক্ষ হিসেবে চিহ্নিত করার চেষ্টা করা হয়েছে, সেগুলো সঠিক নয়। চীনের বিরুদ্ধে পশ্চিমা শিল্পকে ধ্বংসের অভিযোগ তোলা হয়েছে, যেটা অবাস্তব। মূলত পশ্চিমারাই বিশ্বে মুক্তবাজার অর্থনীতি নিয়ে এসেছে এবং চীন সেখানে প্রতিযোগিতায় এগিয়ে গেছে। বৈধ নিয়মে প্রতিযোগিতায় টিকতে না পেরে যুক্তরাষ্ট্র এখন চীনকে তাদের ভবিষ্যতের জন্য সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হিসেবে ঘোষণা দিয়েছে। বিস্তারিত থাকছে হায়দার সাইফের প্রতিবেদনে।


প্রশিক্ষন ছাড়া পাঠানো হচ্ছে যুদ্ধে : বেঘোরে প্রান যাচ্ছে

  • ২৭ জুন ২০২২ ১৯:৩৪

ফেব্রুয়ারি মাসে রাশিয়া যখন ইউক্রেন অভিযান শুরু করে,  তখন জনগণের বিপুল সমর্থন পেয়েছিল প্রেসিডেন্ট ভোলোদিমির জেলেন্সকির সরকার। বহু ইউক্রেনিয় নাগরিক তখন জন্মভূমিকে রক্ষার জন্য সোচ্চার হয়েছিল। এখন যুদ্ধের চার মাস পরেও রাশিয়ার অগ্রগতি থামানো যাচ্ছে না। হতাহতের সংখ্যাও ক্রমেই বাড়ছে। এই অবস্থায় ইউক্রেনের জনগণের মধ্যে ক্ষোভ আর হতাশা বাড়তে শুরু করেছে। স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে যারা বাহিনীতে যোগ দিয়েছেন, তাদেরকে খুবই সামান্য প্রশিক্ষণ দিয়ে ফ্রন্টলাইনে পাঠিয়ে দেয়া হচ্ছে। পরিবারের সদস্যরা অভিযোগ করেছেন, ফ্রন্টলাইনে সেনাদের পর্যাপ্ত সুরক্ষা সরঞ্জাম নেই। অনেকে চাঁদা তুলে ফ্রন্টলাইনের স্বজনদের জন্য সুরক্ষা সরঞ্জাম কিনে পাঠিয়েছেন। এদিকে, সেনা পরিবারের সদস্যদেরকে অর্থ সংগ্রহের জন্য সরকার বাধ্য করছে বলেও অভিযোগ উঠেছে। বিস্তারিত থাকছে হায়দার সাইফের প্রতিবেদনে।


ইউক্রেন নিয়ে পশ্চিমের ঐক্য ভেঙ্গে পড়তে শুরু করেছে

  • ২৪ জুন ২০২২ ১৮:৫৬

ইউক্রেনে রাশিয়ার অভিযান শুরুর পর পশ্চিমা দেশগুলোর মধ্যে যে ঐক্য গড়ে উঠেছিল, তাতে ফাটল দেখা দিয়েছে। যুদ্ধের প্রথম দিকে পশ্চিমা দেশগুলো একজোট হয়ে রাশিয়ার উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছিল। কিন্তু এখন ইউক্রেনকে সামরিক সহযোগিতা দেয়া ও যুদ্ধ দীর্ঘায়িত করার প্রশ্নে বিভক্ত হয়ে পড়েছে পশ্চিমারা। যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, ও পূর্ব ইউরোপের দেশগুলো চাচ্ছে, রাশিয়াকে তাদের উপযুক্ত শাস্তি পেতে হবে। এ জন্য যুদ্ধ দীর্ঘায়িত হলেও তারা মেনে নিতে প্রস্তুত। কিন্তু ফ্রান্স, ইটালি, জার্মানিসহ ইউরোপের অন্য অনেকগুলো দেশ মনে করছে, ছাড় দিয়ে হলেও ইউক্রেনের উচিত, রাশিয়ার সাথে আলোচনায় বসা। এবং একটা সমঝোতার মাধ্যমে যত দ্রুত সম্ভব যুদ্ধের ইতি টানা উচিত। এদিকে, জরিপে দেখা গেছে, মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণের চেয়ে যুদ্ধের দিকে বেশি মনোযোগ দেয়ায় পশ্চিমা নেতাদের উপর ক্ষুব্ধ হয়ে উঠছে জনগণ। বিস্তারিত থাকছে হায়দার সাইফের প্রতিবেদনে।


বিজেপিকে মোকাবেলার মোক্ষম অস্ত্র হলো অর্থনীতি

  • ১২ জুন ২০২২ ১০:০৮

উপসাগরীয় দেশগুলো ভারতের অর্থনীতির জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ভারতীয় অভিবাসনের দিক থেকে এই অঞ্চল বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম। ২০১৯ সালে কোভিড-১৯ মহামারী ছড়িয়ে পড়ার আগে এই অঞ্চল থেকে ভারত যে রেমিটেন্স পেয়েছিল, সেটা ছিল ভারতের জিডিপির দুই শতাংশ। উপসাগরীয় অঞ্চলের দেশগুলোর প্রতিক্রিয়াকে তাই ভারত সরকার অবহেলা করতে পারে না। ভারতে মুসলিম বিদ্বেষী মনোভাব চরম আকার ধারণ করার প্রেক্ষিতে পশ্চিমা দেশগুলো এর আগে বহুবার উদ্বেগ জানালেও ভারত সেগুলোকে পাত্তা দেয়নি। কিন্তু সাম্প্রতিককালে বিজেপির শীর্ষ পর্যায়ের দুই কর্মকর্তার চরম ঔদ্ধত্মপূর্ণ বক্তব্যের পর উপসাগরীয় দেশগুলো যখন তীব্র প্রতিক্রিয়া জানালো, তখন তাৎক্ষণিক পদক্ষেপ নিয়েছে ভারত সরকার। যদিও উপসাগরীয় দেশগুলো দাবি জানিয়েছে, ভারতকে এ জন্য প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে হবে। বিস্তারিত থাকছে হায়দার সাইফের প্রতিবেদনে।


সাফল্যের পাল্লা রাশিয়ার দিকে : অসহায় ইউক্রেন

  • ৩১ মে ২০২২ ১৮:২০

ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলীয় ডোনবাসে ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে বিশেষ সামরিক অভিযান শুরু করে রুশ বাহিনী। ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভ দখলের টার্গেট নিয়েই এই অভিযান শুরু করা হয়েছিল। তবে যুদ্ধের প্রথম দিকে ইউক্রেনের সেনাবাহিনীর তীব্র প্রতিরোধের মুখে রুশ বাহিনী ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। কিন্তু এখন পরিস্থিতি অনেকটাই বদলে গেছে। প্রতিরক্ষা বিশ্লেষকরা বলছেন, যুদ্ধের গতিপথ এখন আর ইউক্রেনের নিয়ন্ত্রণে নেই, বরং ধীরে ধীরে রাশিয়ার দিকেই ঝুকে পড়ছে।


আরব বিশ্বে ইসলামপন্থী রাজনীতির ভবিষ্যত কী ?

  • ২২ মে ২০২২ ২১:০৪

মিশরের স্বৈরশাসক আবদেল ফাত্তাহ আল সিসির নজিরবিহীন বর্বরতার মুখে বিশে^র সবচেয়ে প্রভাবশালী ইসলামী সংগঠন মুসলিম ব্রাদারহুড ভয়াবহ সংকটে পড়েছে। এ দলটি আবার ঘুরে দাঁড়াতে পারবে কিনা, সেই প্রশ্ন জাগছে অনেকের মনে। মিডল ইস্ট আইয়ে এক নিবন্ধে এ প্রশ্নের জবাব দিয়েছেন মুসলিম ব্রাদারহুড ও ইসলামী রাজনীতি বিষয়ক গবেষক এবং আয়ারল্যান্ডের ডাবলিন সিটি ইউনিভার্সিটির সহকারী অধ্যাপক ড. এরিকা বিয়াগিনি। তার মতে ইসলামপন্থীদের বিরুদ্ধে চলমান নিপীড়ন সত্ত্বেও ঐতিহাসিকভাবেই তারা অদম্য এবং বিপর্যয়কর পরিস্থিতিতেও টিকে থাকতে সক্ষম। ইসলামপন্থী রাজনীতির ভবিষতের নানা দিক নিয়ে থাকছে আজকের প্রতিবেদন।


ইরানের অর্থনীতির নাটকীয় উত্থান

  • ১৮ মে ২০২২ ১৭:৩১

ইরানের ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা এখনো বহাল আছে। তবে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল আইএমফের সর্বশেষ তালিকায় বিশ্বের সর্ববৃহৎ অর্থনীতির দেশগুলোর তালিকায় ২০তম অবস্থানে উঠে এসেছে দেশটি। ইরানের...


ইউক্রেনের পর যুদ্ধ ক্ষেত্র হতে যাচ্ছে বলকান

  • ১৭ মে ২০২২ ১২:৪৪

ইউক্রেন যুদ্ধকে কেন্দ্র করেই গোটা বিশ্বের রাজনীতি ও অর্থনীতি বড়ো আকারের ধাক্কা খেয়েছে। তবে তা এখানেই থামবে বলে মনে হচ্ছে না। রাশিয়া যখন সাবেক সেভিয়েত ইউনিয়নের আওতাধীন এলাকাগুলোর ওপর নিজেদের আধিপত্য প্রতিষ্ঠায় সশস্ত্র পথে অগ্রসর হয়েছে, তখন বলকান অঞ্চলেও সাবেক যুগোশ্লোভিয়ার আওতাধীন অঞ্চলগুলোতে নতুন করে টানাপোড়েন শুরু হয়েছে। সার্বিয়া ও বসনিয়া এবং হার্জেগোভিনাও নিজেদের স্বার্থে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও মস্কোতে দৌড়ঝাপ শুরু করেছে। কেউ বা স্বাধীন দেশের জন্য কাজ করছে আবার কেউ বা বিদ্যমান রাষ্ট্রীয় কাঠামো ধ্বংসের চেষ্টা করছে। বলকান অঞ্চলের নিয়ন্ত্রন নিয়ে মস্কো আর ইউরোপীয় ইউনিয়নের মধ্যে পরোক্ষ লড়াইও শুরু হয়ে গেছে। বলকান অঞ্চলে চলমান অস্থিরতা ও আঞ্চলিক সংকট নিয়ে এই প্রতিবেদন।


ফিলিস্তিনের কন্ঠস্বরের বিদায় : দর্শকদের অপেক্ষায় রেখে নিজেই খবর হয়ে হাজির হলেন শিরিন আবু আকলেহ

  • ১৩ মে ২০২২ ১৬:০২

 শিরিন আবু আকলেহ। ফিলিস্তিনের দর্শকদের কাছে আল জাজিরা মানেই ছিলো এই একটি নাম। তিনি ছিলেন যুদ্ধবিধ্বস্ত মানুষের কণ্ঠস্বর। টেলিভিশনের পর্দায় যখন তাকে তাকে দেখা যেতো, উজ্জীবিত হতেন ফিলিস্তিনীরা। তার একেকটি প্রতিবেদন ছিলো নিপীড়িত মানুষের ভাষা। ইসরাইলি সেনার গুলিতে এই সাংবাদিকের মৃত্যুতে শোকে কাঁদছে অশান্ত ভুমি। তাকে নিয়ে আমাদের আজকের প্রতিবেদন। তৈরি করেছেন শাহ মুহাম্মদ মোশাহিদ