এশিয়ার ন্যাটো গঠনের চেষ্টা কী ভেস্তে যাচ্ছে

  • ১৮ অক্টোবর ২০২০ ১৪:৪৬

ভারতকে ক্রমাগত চাপ দিয়ে যেতে থাকে চীন। এ চাপের মুখে ভারত বাধ্য হয় নয়া দিল্লিতে চার দেশীয় বৈঠক বাতিল করতে আর চলতি সপ্তাহে টোকিও বৈঠকের পর একটি দায়সারা বিবৃতি দিতে। টোকিও বৈঠকে কী হয়েছে তার পুরো বিবরণ এখনও সহজলভ্য নয়। এটাকে বলা যায় একটা ফর্মাল ইভেন্ট। তবে এতে লুকিয়ে আছে আগামী দিনের ''এশিয়ান ন্যাটো''র বীজ। এশিয়ায় শান্তির এবং আরেকটি মহাযুদ্ধের আশঙ্কা - দু'টোই লুকিয়ে আছে সেখানেই


এরদোয়ান-পুতিন বন্ধুত্ব কি ভেঙে যাচ্ছে

  • ১৫ অক্টোবর ২০২০ ১৬:৪২

এক কথা দু'কথায় এরদোয়ান-পুতিন টেলিফোন আলাপটি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। কোনো পক্ষই পিছু হটতে নারাজ। এই প্রথমবারের মতো তুরস্কের সাথে এতোটা অনমনীয় মনোভাব দেখালেন পুতিন। শুধু পুতিন নন, ওই সময় তুরস্ক সফররত এক রুশ প্রতিনিধিদলও তুর্কী প্রতিনিধিদলকে বলে উত্তরাঞ্চলীয় আফরিন এলাকা থেকে সরে আসতে


লাইফ সাপোর্টে আমেরিকার প্রেস্টিজ

  • ০৮ অক্টোবর ২০২০ ১৬:৩৪

মজার ব্যাপার হলো, বিভিন্ন সময়ে বিভিন্নভাবে রাশিয়া ও চীনকে হুমকি দিয়ে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও যেন দেশ-দু'টিকে অনেক কাছাকাছি এনে দিয়েছেন। রাশিয়ার কাছ থেকে তেল কেনার এক দীর্ঘমেয়াদী চুক্তি করেছে চীন। সাইবেরিয়ার বিস্তীর্ণ অঞ্চলে যৌথভাবে কৃষি ও প্রাকৃতিক সম্পদ আহরণে কাজ করতেও সম্মত হয়েছে উভয় দেশ। চীনকে একটি অ্যান্টি-মিসাইল ডিফেন্স সিস্টেম স্থাপনেরও প্রস্তাব দিয়েছে রাশিয়া


ইরান কি আরমেনিয়ার পক্ষে !

  • ০৭ অক্টোবর ২০২০ ১৪:১৯

তুরস্কের একজন পর্যবেক্ষক তাই বলেন, খালি চোখেই দেখা যায় আজারবাইজান ও আর্মেনিয়া - এ দু' দেশের মধ্যে আর্মেনিয়ার সাথেই ইরানের সম্পর্ক বেশি ঘনিষ্ঠ। এর কারণও আছে। যেমন, রাশিয়ার সাথে রয়েছে ইরানের রাজনৈতিক মৈত্রী। এ সংঘাতে রাশিয়া নিয়েছে আর্মেনিয়ার পক্ষ। অতএব এখানে আর্মেনিয়ার বিপক্ষে যাওয়াটা অনেকটা রাশিয়ার বিপক্ষে যাওয়ার মতোই হয়ে যায়। ইরান এ ঝুঁকি নিতে চায় না


ইরান নয়, টার্গেট তুরস্ক

  • ০১ অক্টোবর ২০২০ ১৫:৩৩

লিবিয়া, সিরিয়া ও ইরাক - এ তিন আরব দেশে তুরস্কের সৈন্য এবং তুর্কী মদদপুষ্ট মিলিশিয়ারা তৎপর রয়েছে। এটা ভূ-রাজনৈতিক বাস্তবতা যে আরব বিশ্ব এবং আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে তা অবশ্যই স্বীকার করতে এবং ব্যবস্থা নিতে হবে। এসব দেশ এবং তার বাইরেও তুরস্কের যে আঞ্চলিক, রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক আকঙ্খা আছে, তা দেশটির প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান ও শীর্ষ কর্মকর্তারা মোটেই লুকাচ্ছেন না